বাগমারায় ভিক্ষুককে পিটিয়ে বাড়ি ছাড়া করা মামলার আসামী গ্রেপ্তার

বাগমারায় ভিক্ষুককে পিটিয়ে বাড়ি ছাড়া করা মামলার আসামী গ্রেপ্তার




রাজশাহীর বাগমারায় একাধিক কৌশল চালিয়ে দুই  মাস পর বাগমারার তাহেরপুর পৌরসভার সুলতানপুর মহল্লার ভিক্ষুক সুবেদা বেওয়া (৬০) ও তার মেয়ে সোহাগী বেগম (৩৫) কে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম ও বাড়ি ছাড়া করা মামলার অন্যতম আসামী মামুনুর রশীদ বাবু (৪০) গ্রেপ্তার করেছে বাগমারা থানার পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত বাবুকে আজ মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে বাগমারা থানার ওসি আতাউর রহমান জানিয়েছেন।

জানা যায়, চলতি বছরের ১৬ আগষ্ঠ বিকেলে তাহেরপুর পৌরসভার সুলতানপুর মহল্লায় ভিক্ষুক সুবেদা বেওয়া ও তার মেয়ে গৃহবধু সোহাগী বেগম (৩৫) কে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে বাগমারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। গত ১৮ আগষ্ঠ ভিক্ষকুকের মেয়ে সোহাগী বেগম বাদী হয়ে ৬ জনের নাম উল্ল্যেখ করে বাগমারা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ৪ জন আসামী জামিনে মুক্ত হলেও ১ ও ২ নম্বর আসামী জামিন না নিয়ে এলাকায় দাপটের সাথে ঘোরাফিরা শুরু করেন এবং মামলার বাদী এবং স্বাক্ষীদের হুমকি ধামকি দেয়। বিষয়টি জানার পর র্পই মামলার দায়ীত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফরিদা পারভিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে রাতেই তাহেরপুর পৌরসভার সুলতানপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে চালিয়ে মামলার অন্যতম আসামী মামুনুর রশীদ বাবুকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত বাবুকে ্আজ মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে বলে বাগমারা থানার পুলিশ জানায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) ফরিদা পারভিন বলেন, মামলার অন্যতম আরেক  আসামী মাহহাবুর রহমানকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে। যে কোন আসামী মাহহাবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে আইনের ্আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান।

বার্তা প্রেরক
মোঃ সাইফুল ইসলাম
বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধি







মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন