নরসিংদীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ একাধিক বাড়িতে ডাকাতি, আটকের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নরসিংদীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ একাধিক বাড়িতে ডাকাতি, আটকের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন




নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার যোশর ইউনিয়নের ভঙ্গারটেক গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান মিয়া সহ একাধিক বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় ডাকাতদের আটকের দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। মঙ্গলবার বিকেলে ভঙ্গারটেক বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান মিয়ার বাড়ির পাশে সৃষ্টিঘর-কুটিরবাজার সড়কে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ জনগণ এই মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন।

এসময় তারা বলেন, দীর্ঘদিনের শান্তিপ্রিয় পাহাড়ি এলাকায় সম্প্রতি বেশকিছু ডাকাতির ঘটনায় এলাকায় অশান্তি বিরাজ করছে। ডাকাতের আতঙ্কে এখন গ্রামবাসীরা পাহাড়া দিয়ে ঘুমাতে হয়। এছাড়া গ্রামের কোন বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটলে পুলিশ মামলা না নিয়ে ধামাচাপা দিয়ে থাকে। এভাবে আর চলতে পারেনা। এর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে এই মানববন্ধন। গত ১৫ নভেম্ভর ভঙ্গারটেক এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান মিয়ার বাড়িতে একদল ডাকাত ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে বাড়ির লোকজনকে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। এছাড়া ঘরে থাকা নগদ অর্থসহ প্রায় দশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

শুধু তাই নয়, গত ১৬ নভেম্বর সোমবার রাতে একই ইউনিয়নের মুরগীবের গ্রামের ডা: মিলন মিয়ার বাড়িতে, নৌকাঘাটা গ্রামের প্রবাসী লক্ষণ এর বাড়িতে ডাকাতি সংগঠিত হয়। এর কয়েকদিন আগে জয়নগর ইউনিয়নের ভেড়ামারা এলাকার আ: রশিদ মীর ও মনির মীরের বাড়িতে ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে। স্থানীয়রা জানান একই ইউনিয়নের গিলাবের গ্রামের বাসু ও মোক্তারের বাড়িতেও ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে এবং কুমারটেক এলাকায়ও ডাকাতি হয়েছে। প্রতিটি ডাকাতির সংঙ্গে মাস্টার সাব বলে একটি নাম উচ্চারিত হয়। তাহলে কেই মাস্টার সাব? তাকে খোজে বের করতে হবে পুলিশকে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, ডাকাতরা শুধু ডাকাতিই করেনা, তারা ঘরে থাকা লোকজনকে মারাত্মকভাবে আহত করে সারা জীবনের জন্য পঙ্গু করে দেয়। এভাবে চলতে থাকলে এই পাহাড়ি এলাকায় আইনশৃঙ্খলার মারাত্মক অবনতি ঘটতে পারে।

স্থানীয়রা আরো জানান, শিবপুরের বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতির ঘটনা ঘটলেও থানা পুলিশ ডাকাতির মামলা না নিয়ে সাধারণ ডায়রী করেই তাদের বিদায় করে দেন। কিন্তু ভঙ্গারটেক এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান মিয়ার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় তিনি বাদি হয়ে শিবপুর থানায় ডাকাতির মামলা দায়ের করেন। শিবপুর থানা পুলিশ মামলাটি গ্রহণে প্রথমে অনিহা করলেও অবশেষে ১৬ নভেম্বর রাতেই মামলাটি নথিভূক্ত করেন।
শিবপুর মডেল থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) মো: আবুল কালাম সমকালকে জানান, ২০২০ সালে জানুয়ারি মাস থেকে এ পর্যন্ত শিবপুর থানায় কোনো ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি। শুধু মাত্র ১৫ নভেম্বর বীর মুক্তিযোদ্ধার শাহজাহান মিয়ার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় থানায় শিবপুর মডেল থানায় একটি মামলা নথিভূক্ত করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার বিষয়ে ডাকাতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে এবং এলাকায় বিভিন্ন সভা সমাবেশ করে সকলকে এ বিষয়ে সহযোগিতা করার আহবান জানিয়েছে।

বার্তা প্রেরক
মোঃ নুরুল ইসলাম
নরসিংদী প্রতিনিধি







মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন